বিশ্ব.কম হোম, বিজ্ঞান, ফিডব্যাক,অংশ নিন fb page

পৃষ্ঠা

শনিবার, ১৭ মে, ২০১৪

স্কেটবোর্ড চালানোর কৌশল -পর্ব ২

আগের পর্ব দেখুন 

২.১। মৌলিক দক্ষতা অর্জন


বোর্ডের কোন অবস্থানে আপনার দাঁড়ানো বেশি সহজ তা বের করুন। ভারসাম্য অর্জন ও স্বস্তিদায়ক অনুভূত হওয়া পর্যন্ত বোর্ডে দাঁড়িয়ে থাকায় ক্ষতি নেই।

২.২। 

কোন পা দিয়ে ধাক্কা দেবেন তা ঠিক করুন। অপর পা থাকবে বোর্ডের উপর, আর এই পা আপনাকে ঠেলে নিয়ে যাবে। সহনীয় গতিতে চলুন। প্রথমে একটু ধীরে চলুন।

 

২.৩। হাঁটুকে বাঁকিয়ে নিন। 

এতে করে অভিকর্ষ কেন্দ্র ভূমির নিকটবর্তী হবে এবং আপনি সহজেই ব্যালেন্স রাখতে ও মোড় নিতে পারবেন।


২.৪। মোড় নেওয়া ও থামা চর্চা করুন। 

-যেদিকে মোড় নিবেন সেদিকে আপনার শরীরের ভর নত করুন। 
-থামার জন্য আপনার পেছনের পা মাটিতে ফেলুন অথবা
- বোর্ডের সামনের অংশ মাটির উপরে তুলে ফেলে পেছনের অংশে চাপ দিন। এটা কিছুটা বিপজ্জনক। 
২.৫। ভিডিও দেখা
চর্চার অংশ হিসেবে ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখতে পারেন। যেমন ইউটিউবে Skateboarding লিখে সার্চ দিয়ে প্রাপ্ত ভিডিওগুলো দেখতে পারেন। 

স্কেটবোর্ড চালানোর কৌশল -পর্ব ১

এই ধারাবাহিক পর্বে আপনি জানতে পারবেন কীভাবে স্কেটবোর্ডিং করতে হয় বা কীভাবে স্কেটবোর্ড চালাতে হয়। এখানে আলোচনা চলবে স্কেটবোর্ড নিয়ে, রোলার স্কেট নিয়ে নয়। সেটা না হয় অন্য কোথাও শিখবো।

১.১। বাছাই

স্থানীয় স্কেট দোকান বা স্কেটের সাইট ঘুরে দেখুন। এভাবে আপনি জানতে পারবেন কোনটায় কাজ হবে আর কোনটায় হবে না। অন্য স্কেটার বা দোকানীর সাথে আলাপ করলেও জানা যাবে কোন ধরণের বোর্ড, চাকার কেমন সুবিধা, অসুবিধা।
লক্ষ্যণীয় বিষয় হল-
- দাম বেশি হলেই যে মান ভালো হবে তা নয়।
- চাকাকে রানিং রাখতে হলে প্রায় ৬ মাস পর পর চাকার বিয়ারিং পাল্টানো দরকার।

১.২। ক্রয়

পূর্বাভিজ্ঞতাসম্পন্ন কাউকে বা কোন বন্ধুকে সাথে নিয়ে কিনে ফেলুন স্কেটবোর্ড।
-সাথে লাগবে মানানসই পোশাক ও জুতা।
-স্কেট জুতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ যাতে আপনি সহজেই বিভিন্ন দিকে পা নাড়াতে পারেন। অন্যথায় পড়ে যাবার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।
-সাথে লাগবে অন্যান্য নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা যেমন হেলমেট, হাঁটুর প্যাড, কনুইএর প্যাড। এতে করে পতন ও দূর্ঘটনা থেকে নিরাপদ থাকা যাবে।

১.৩। বুঝতে শিখুন

কীভবে স্কেটবোর্ড নত হয়, বাঁকা হয়, চাকারা কীভাবে ঘোরে বোঝার জন্য সময় নিন। আপনার বাড়ির লনে বা ভালো সমতল মাঠে নেমে বুঝতে শিখুন কীভাবে বোর্ড কাজ করে। এর জন্য সমতল, কংক্রিটের জায়গা উত্তম। খেয়াল রাখতে হবে যেন চলার পথে কোন ফাটল, গর্ত, ইট বা পাথরের কণা বা টুকরো না থাকে।
-স্কেটিং ভালো পারে এমন কারো কাছ থেকে পরামর্শ নিন।
--পর্ব ২ দেখুন


বুধবার, ১৪ মে, ২০১৪

অনলাইনে ফাইল জমা রাখার বেশ কিছু ওয়েবসাইট


১। www.box.com, বিনামুল্যে ১০ গিগা বাইট 
২। www.copy.com ১৫ গিগাবাইট ফ্রি। 
৩। drive.google.com। যেকোনো গুগল অ্যাকাউন্ট থাকলেই গুগল ড্রাইভে উপভোগ করা যায় ১৫ গিগাবাইট ক্লাউড স্টোরেজ
৪। opendrive.com। এটি মাইক্রসফটের। এতে রয়েছে ৭ গিগা বাইট ফ্রি। 
৫। spideroak.com। মাত্র ২ জিবি ফ্রি। 
৬ dropbox.com। এটাও একটি ভালো অপশন।