বিশ্ব.কম হোম, বিজ্ঞান, ফিডব্যাক,অংশ নিন fb page

পৃষ্ঠা

শনিবার, ২৮ জুন, ২০১৪

মজিলার জন্য বাংলাদেশের পতাকা সহ চমৎকার কিছু থিম

ছবি দেখেই মনে হয় বিবরণ পড়ার চেয়ে ভালো বোঝা যায়। 
মজিলা ব্রাউজারে নিচের থিমটি দেখতে নিশ্চয় সুন্দর লাগে। হ্যাঁ, এটা আপনার মজিলায়ও সহজেই ইন্সটল করে নিতে পারেন।

গেলে নিচের ছবির মত দৃশ্য ভেসে উঠবে।
এবার ক্লিক করুন Add to Firefox.

আর কোন ঝামেল নেই। মজিলার অন্য অ্যাড-অনের মত আবারো ইন্সটল করার মেনুয়াল কোন ধাপ নেই। নিজে নিজেই এবার চালু হয়ে যাবে।
এরকম আরো সুন্দর সুন্দর থিম পেতে এখানে ক্লিক করে বাছাই করুন বা সার্চ করুন। রমজান মাসে রমজান নিয়েও সুন্দর সুন্দর ইসলামিক থিমও রেখেছে মজিলা।

শুক্রবার, ২৭ জুন, ২০১৪

জিমেইলে লেবেল কী কেন কীভাবে?

গুগল ক্যাটাগরি বা বিভাগ এর জন্য লেবেল শব্দ ব্যবহার করে। যার প্রমাণ পাওয়া যায় ব্লগার সার্ভিসেও। যাই হোক, লেবেল প্রয়োগ করে আপনি আপনার জিমেইলের মেইলগুলোকে বিভিন্ন পছন্দসই বিভাগে যুক্ত করে রাখলে পরে দেখতে বা খুঁজে পেতে সুবিধা হবে।
জিমেইলে লগ ইন করলে দেখবেন বাম পাশের পেইনে Labels লিস্ট এর নিচে ডিফল্ট লেবেলগুলোর একটি তালিকা আছে। আপনি এতে আরো যোগ করতে পারেন।
তাহলে, Edit Labels বা More -এ ক্লিক করুন। নিচের চিত্রের মত দেখা যাবে।
এখানে Create a new label এর নিচের বক্সে লেবেলের নাম লিখে Create এ ক্লিক করুন।
এখন ইনবক্স , সেন্ট আইটেম বা ড্রাফটের মেইল নির্দিষ্ট তালিকা ফেলতে Inbox, Sent Mail বা Drafts এ ক্লিক করে যে মেইলটি যুক্ত করবেন তার বাম একেবারে বাঁয়ে যে চেক বক্স আছে তাতে ক্লিক করুন। একাধিক মেইলও একইসাথে করতে পারবেন।

এবার উপরে More Action .... ড্রপডাউন লিস্ট থেকে আপনার পছন্দসই লেবেলে ক্লিক করে More Actions.... এর ডানে Go তে ক্লিক করুন।
এইই! ব্যাস!

শনিবার, ২১ জুন, ২০১৪

ভিন্ন ভাষায় একই বানানের ভিন উচ্চারণ কেন?

জবাবটা একটু পরে বলছি, আগে একটু আলাপ করে নেই।
ব্যাপারটি আমার প্রথম চোখে পড়ে ২০১০ সালের নোবেল পুরস্কারের মৌসুমে। সে বছর সাহিত্যে নোবেল পান পেরুর লেখক মারিও ভার্গাস য়োসা। ভদ্রলোকের নামের ইংরেজি বানান Mario Vargas Llosa। তার মানে Llosa = য়োসা। মানলাম, কিন্তু যখন 'য়োসা' ই হবে তখন Osa লিখলেই চলত Llosa কেন?
আবার স্পেনের বিখ্যাত ফুটবলার ডেভিড ভিয়ার নামের বানানও কিন্তু Villa। কেন?
আবার বাংলায় আর্য শব্দকে ইংরেজিতে লিখতে হলে হয় Arya, বিশ্বাস হয় bishwas। আরবি ঈসা ইংরেজিতে হয় Jesus আর বাংলায় যীশু।

আসলে বানানের রূপ পরিবুর্তন হয় ধ্বনির মৌলিকত্ব অক্ষুণ্ণ রাখার জন্য। বাংলা য-ফলা বা য- বর্ণের ইংরেজি প্রতি বর্ণ হল y। ফলে আর্য হল arya। তেমনি বিদ্যা হবে Bidya। অভ্র কি-বোর্ডে লিখতে গেলে প্রতি-বর্ণায়নের ব্যাপারে কিছুটা ধারণা হয়, যদিও পারফেক্ট নয়।
এছাড়া 'বিশ্বাস" লিখতে 'শ' এর নিচের 'ব' টি স্বাভাবিক 'ব' নয়, ২য় 'ব'। এর অন্য ব্যবহার আছে 'স্বাভাবিক' শব্দে, ধ্বনি শব্দে ইত্যাদি। আর এর ইংরেজি প্রতি-বর্ণ হল w।
তাই বিশ্বাস = Bishwas।
আবার অনেক সময় বানানে থাকা সব অক্ষর উচ্চারিত হয় না। এর কারণও ধ্বনির মৌলিকত্ব সংরক্ষণ।
য়োসা সাহেবের বাড়ি পেরু। পেরুতে উনারা চলেন স্প্যানিশ ভাষা দিয়ে। একটি অতিরিক্ত ñ ছাড়া ইংরেজি ও স্প্যানিশের সব বর্ণ একই, তবে উচ্চারণ কিছুটা ভিন্ন। স্প্যানিশ L ও ইংরেজি L এর উচ্চারণ ভিন্ন। ডাবল L এর (Ll) উচ্চারণ আরও ভিন্ন। অঞ্চলভেদে Ll এর উচ্চারণগত পার্থক্য থাকলেও এর সবচেয়ে প্রচলিত উচ্চারণ হল ইংরেজি y অক্ষরের (যেমন Yellow শব্দে) মত। 

ফুটবল মাঠের মাপঝোঁক

খেলা দেখি আর না দেখি, পছন্দ করি আর না করি, সাপোর্টার যে দলেরই হই না কেন, সাড়ে তিনশো কোটি ভক্তের মন কেড়ে নেওয়া বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই ক্রীড়া সম্পর্কে আমাদের জানা উচিত। ২০০ এর অধিক দেশের ২৫ কোটি মানুষের পেশা ফুটবল খেলা।

ফুটবল বলের তথ্যঃ

সাইজ-৫ সকার বলের ব্যাস হচ্ছে ২২ সে.মি. বা ৮ দশমিক ৬৫ ইঞ্চি। নিয়ম হচ্ছে এই মাপের বলের পরিসীমা হতে হবে ৬৮-৭০ সেমি এর মধ্যে। ফলে, ভাগ করে ব্যাস পাওয়া যায় প্রায় ২২ সে.মি.। 
এবার আসি মাঠের খবরাখবরে। বর্ণনার চেয়ে ছবি দেখে ভালো বোঝা যাবে। নিচের ছবিটি বড় করে দেখতে এখানে ক্লিক করুন। 

মাঠটি অবশ্যই আয়তাকার। বৃহত্তর বাহুগুলোকে বলে স্পর্শরেখা (টাচলাইন) আর অপর বিপরীত বাহুদ্বয়কে বলে গোল রেখা। উভউপাশেই গোল লাইনদ্বয় ৪৫ থেকে ৯০ মিটারের মধ্যে থাকতে হবে( ৫০-১০০ গজ)। দুই স্পর্শরেখার দুরত্ব হতে হবে ৯০ থেকে ১২০ মিটারের মধ্যে (১০০-১৩০ গজ)। 
তবে আনর্জাতিক ম্যাচে গোল লাইন ৬৪ থেকে ৭৫ মিটার ( ৭০-৮০গজ) এবং টাচলাইন ১০০ থেকে ১১০ মিটার ( ১১০ থেকে ১২০ গজ) এর মাঝে থাকতে হবে। 

গোলপোস্টঃ
গোলপোস্ট দৈর্ঘ্যে ৮ গজ বা ৭.৩২ মিটার এবং উচ্চতায় ৮ ফুট বা ২.৪৪ মিটার হবে। 
গোল পোস্টের ১১ মিটার বা ১২ গজ দুরত্ব থেকে পেনাল্টি কিক করা হয়। 

অন্যান্য হিসাবঃ
মাঠের একেবারে মাঝে যেই বৃত্ত্ব আছে তার ব্যাসার্ধ কেন্দ্রীয় বিন্দু হতে ৯.১৫ মিটার।  কর্নারের সময় বিপক্ষ দলের খেলোয়ারকে ৯.১৫ মিটার বা দশ গজ দূরে থাকতে হবে। 


শুক্রবার, ২০ জুন, ২০১৪

জিমেইলে ব্যাবহার করুন পছন্দসই থিম

আপনি নিশ্চয়ই চান আপনার জিমেইলের ইন্টারফেস সুন্দর দেখাক। একটি সুন্দর থিম সেট করলেই জিমেইল দেখতে অনেক দর্শনীয় লাগবে। তাহলে চলুন করে ফেলি!
১. জিমেইল প্রবেশ করুন।
২.  
এই চিহ্নে ক্লিক করুন যা উপরে ডান পাশে পাওয়া যাবে।
৩. অনেকগুলো থিম আসবে। পছন্দমত থিমে ক্লিক করুন।
ব্যাস!
আপনি চাইলে নিজস্ব কোন ছবিও যুক্ত করে থিম বানাতে পারেন।

সোমবার, ২ জুন, ২০১৪

কীভাবে ওয়ার্ড ডকুমেন্ট ফাইল অটো সেইভ করবেন?

আপনার পিসি বা ল্যাপট্যাপ ক্র্যাশ করতে পারে, বিদ্যুৎ চলে যেতে পারে (আমাদের যেমন ভাগ্য!) অথবা আপনি নিজেই ভুলক্রমে  ফাইলটি ক্লোজ করতে পারেন। তাহলে আধঘন্টা/ এক ঘন্টা ধরে তৈরি করা ফাইলটা গেল ভেস্তে!।

কিন্তু পরিত্রাণ আছে। যেমণ কথা আছে না- যেটার সমাধান নেই সেটা সমস্যাই না। 
সমাধান-১ ; একটু পর পর সেভ করা। (কি বোর্ডে Ctrl+S) চাপুন বা File > Options > Save।
সমাধান-২; প্রতি x মিনিট পর Save AutoRecover অপশন চালু রাখা। 
চালু করতে হলে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড প্রোগ্রামে প্রবেশ করে Office Button এ ক্লিক করে একেবারে নিচের দিকে থাকা Word Options এ ক্লিক করতে হবে। এবার বাঁ পাশের Pane থেকে Save এ ক্লিক করে ডান পাশে থেকে নিজের মত Customize করুন।
(ছবিটি বড় করে দেখতে তার উপরে ক্লিক করুন)

সমাধান-৩; Word, Excel, এবং PowerPoint এ "Keep the last autosaved version if I close without saving" বক্সে ক্লিক করে রাখুন। 

ফেসবুকে ওপেন, ক্লোজড ও সিক্রেট গ্রুপের পার্থক্য কী?

সংক্ষেপে ফেসবুকে ওপেন, ক্লোজড ও সিক্রেট গ্রুপের পার্থক্য কী? " প্রশ্নটির উত্তর দিতে গেলে বলতে হয় open গ্রুপে যে কেউ জয়েন করতে পারে নিজে নিজে, পোস্ট দেখতে পারে। ক্লোজড গ্রুপে Admin কতৃক সদস্যতা অনুমোদিত হতে হয়। আর সিক্রেট গ্রুপ বা তার পোস্ট সার্চ করেও খুঁজে পাওয়া যাবে না, পোস্ট তো দেখা যাবেই না, সদস্যপদ পাওয়া যাবে Admin এর আমন্ত্রণের মাদ্যমেই শুধু।
ফেসবুকের নিজের ভাষায় সব পার্থক্য দেখতে হলে নিচের টেবিলটিতে চোখ বুলান।


Open
Closed Secret
কে যোগ দিতে পারে? নিজে নিজে, অন্য কোন মেম্বার যোগ করলে  যে কেউ যোগ দেবার অনুরোধ জানাতে পারে, মেম্বার কতৃক যোগ বা আমন্ত্রিত হতে পারেন।  যে কেউ, তবে মেম্বার দ্বারা যোগ বা আমন্ত্রিত হতে হবে। 
Who can see the group's name? Anyone Anyone Current and former members
Who can see who's in the group? Anyone Anyone Only members
Who can see the group description? Anyone Anyone Current and former members
Who can see the group tags? Anyone Anyone Current and former members
Who can see what members post in the group? Anyone Only members Only members
Who can find the group in search? Anyone Anyone Only members
Who can see stories about the group on Facebook (like in News Feed and search)? Anyone Anyone Only members